একান্ত আলাপ চারিতা: মানুষের মুখে হাসি দেখলে মনটা ভরে যায়

জাতীয় দেশজুড়ে সাক্ষাৎকার

গোলাম মোস্তফা তালুকার : আমেরিকা প্রবাসী মোঃ আবু সাইদ চৌধুরী। দীর্ঘ সময় প্রবাসে থাকলেও মনটা পড়ে থাকে দেশের মাটিতে। দেশের অসহায় মানুষের জন্য কিছু করতে পারা তার স্বপ্ন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংরা গড়ে তোলার একজন দাযিত্বশীল কর্মি হিসেবে দেখতে চান নিজেকে। প্রবাসে বসেই মুঠোফোনে দৈনিক কালের ছবি প্রতিণিধির সাথে এক একান্ত আলাপ চারিতায় আবু সাঈদ চৌধূরী বলেন, দেশের অসহায় মানুষের মুখে হাসি দেখলে মনটা ভরে যায়।

তিনি জানান, জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবাযনে আমি নিজেকে একজন দায়িত্বশীল কর্মি মনে করি। তাইতো প্রবাসে নিজের কষ্টে অর্জিত অর্থ ব্যযে নিজ এলাকায় গড়ে তুলেছি ডিজিটাল ড্রিম বাংলঅ ফাউন্ডেশন নামের এ অরাজনৈতিক সমাজসেবা মূলক প্রতিষ্ঠানটি। তিনি জানান, এ কাজে এলাকার অনেকেই তাকে আশাতীত সহযোগিতা করছে। যা সত্যি মুগ্ধ হওয়ার মতো।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়া বাংলাদেশ আওয়মিলীগের প্রাথমিক সদস্য তিনি। নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকায় নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামিলীগ তাকে সন্মাননা দিয়েছে।
সেই উৎসাহ থেকেই তিনি নিজস্ব অর্থায়নে বঙ্গবন্ধুর সপ্ন পূরন লক্ষে ডিজিটাল ড্রীম বাংলা ফাউন্ডেশন গঠীত করেন, এই ফাউন্ডেশনে আওতায় নিজস্ব অর্থায়নে পিরোজপুর, ঢাকা,চট্টগ্রাম,খুলনা, এলাকায় ডিজিটাল ড্রীম বাংলা ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

তিনি আরো জানান, নিজস্ব আয়ের উপর থেকে বঙ্গবন্ধুর সপ্নপূরন লক্ষে গরীব অসহায় মানুষের পাশে থেকে তাহাদের সাহায্য সহযোগীতা করতে চাই। তার মহৎ এ মিশনে এসময় পর্যন্ত সামনের সারিতে কাজ করছেন ভান্ডারিয়া থানার মোঃ ইন্জিনিয়র সরোয়ার হোসেন, ঢাকা তেজগাওঁ ৩৭ নং ওয়ার্ড সাবেক কাউন্সীলর ও মোঃ রুস্তুম আলী ফরাজী। তারা এ ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা পরিষদে যুক্ত হয়েছেন। ডিজিটাল ড্রীম বাংলা ফাউন্ডেশন একটি অরাজনৈতিক ফাউন্ডেশন । এই ফাউন্ডেশন ইতোমধ্যে ভান্ডারিয়ায় যুব সমাজকে মাদককে না বলুন এই ¯স্লোগানে স্কুল কলেজের ছাত্রদের মাঝে খেলাধুুলার সরঞ্জম বিতরন সহ প্রতিবন্ধী অসহায় মানুষকে হুইল চেয়ার প্রদান, চিকিৎসা না করতে পারা অসহায় মানুষকে চিকিৎসার জন্য আর্থীক সাহায্য প্রদান, পথ শিশুদের মাঝে খাবার বিতরন মসজিদ মাদ্রাসা ফান্ডে অনুদানসহ নানা সামাজিক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে নিয়া এই ডিজিটাল ড্রীম বাংলা ফাউন্ডেশন কে আরো শক্তীশালি করার লক্ষে ভান্ডারিয়া থানাধীন তালুকদার মার্কেট প্রধান কার্য্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এর আওতায় ভান্ডারিয়া থানার প্রতি ইউনিয়নের ডিজিটাল ড্রীম বাংলা ফাউন্ডেশনের ইউনিট অফিসগুলো কাজ করতে শুরু করেছে। এর প্রতিষ্ঠাতা চান, রাজনৈতিক বিতর্ক এড়িযে এ প্রতিষ্ঠানটি সত্যিকারার্থে মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাবে।

এ কাজ এগিয়ে নেয়ার সম্মুখ সারিরতে এ মুহুর্ত পর্যন্ত যারা নেতৃত্ব দিচ্ছেন তারা হচ্ছেন, মোঃ মাসুদ তালুকদার (বাবু) সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ শোয়েল পোদ্দার মোঃ কাজল শরিফ মোঃ সোয়েল গাজূ, মোঃ মিন্টু, মো সুমন, মোঃ আজিজুল হক ( বাবু) নদমুল্লা ইউনিয়ন, ভান্ডারিয়া সদর ও ভিটাবাড়িয়ার মোঃ আবুবক্কর সিদ্দীক, মোঃ খারুল মোল্লা,মোঃ সায়েদুর রহমান। আসন্ন দিন গুলোতে আরো অনেকেই এ মিশনে যুক্ত হবেন। এমন প্রত্যাশা সবার।

কালের ছবি/রাজীব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *