বাঘায় হোন্ডা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে ধাক্কাঃ পুকুর থেকে চালকের লাশ উদ্ধার

আইন আদালত জাতীয় দেশজুড়ে
হাবিল উদ্দিন, বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর বাঘায় মোটরসাইকেলের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা লেগে ছিটকে পানিতে ডুবে এক যুবকের মৃত্যু। সে চারঘাট উপজেলার  পান্না পাড়া গ্রামের মকবুলের হোসেনের ছেলে জুয়েল হোসেন (৩০)।
 বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার হরিনা গ্রামের সাহাবুদ্দিনের পুকুর থেকে বাঘা উপজেলা  ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে।
জানা যায়,জুয়েল হোসেন মোটরসাইকেল নিয়ে বুধবার ভোর ৪টার দিকে তেথুলিয়া-হরিনা সড়ক হয়ে তেঁথুলিয়া বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন। পতিমধ্যে সে হরিনা গ্রামের সাহাবুদ্দিনের পুকুর পাড়ে পৌছলে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আম গাছের সাথে ধাক্কা লেগে ছিটকে পুকুরে পড়ে যায়। পরে পথচারিরা তার মোটরসাইকেল পড়ে থাকতে দেখে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশকে খবর দেয়।
খবর পেয়ে তারা সেখানে  যায় এবং পুকুর থেকে তার লাশ ও পড়ে থাকা মোটরসাইকেল উদ্ধার করে। এছাড়া তার সাথে আরও কেউ পুকরে ডুবে আছে কিনা এ বিষয়ে প্রধান নুরুননবীর নেতৃত্বে রাজশাহীর ফায়ার সার্ভিসের একটি দল সকাল ৭টা থেকে সাড়ে ৯টা পর্যন্ত ওই পুকুরে অভিযান পরিচালনা করেন। তবে পরে সেখানে আর কিছু পাওয়া যায়নি বলে জানা গেছে।
জুয়েলের বড় ভাই জহুরুল ইসলাম জানান, আমার ভাই আনুমানিক ভোর ৪ টার দিকে তেঁথুলিয়ায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে রওনা হয়। এটি দুর্ঘটনা নয় আমার কাছে রহস্য জনক মনে হচ্ছে।
বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন জানান,লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে দূর্ঘটনা জনিত কারণে তার মৃত্যু হতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ইউডি মামলা করে লাশ ময়না তদন্তের জন্য রামেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলমান। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে সঠিক বলা যাবে।
কালের ছবি/ রাজীব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *