কাবুলে পুনরায় বিস্ফোরণে পাল্টা মার্কিন হামলা

আইন আদালত জাতীয় বিশ্বজুড়ে রাজনীতি

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  কাবুল বিমানবন্দরের পাশের একটি ভবনে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটানায় ১ শিশুসহ দুজন নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে কতৃপক্ষ । তালেবান   রাজধানী কাবুল বিমানবন্দর এলাকাতে চতুর্থ দিনে এটি দ্বিতীয় দফায় বিস্ফোরণ। তবে এ বিস্ফোরণের পিছনে কাদের হাত রয়েছে তা এখনও স্পষ্ট করে বলতে পারছে না মার্কিন গোয়েন্দা দ।

তবে এ হামলার ঘটনার পর হামলাকারীকে বহন করছে সন্দেহে একটি বিস্ফোরক ভর্তি গাড়িকে লক্ষ্য করে ড্রোন হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ফলে একই দিনে আবারও বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, ওই হামলাকারী নিহত হয়েছে বলে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম গার্ডিয়ানের খবরে নিশ্চিত করা হয়েছে।

তবে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, কাবুলের পুলিশ প্রধান রশিদ জানিয়েছেন, বিমানবন্দরে উত্তর–পশ্চিম দিকে রকেট হামলায় এক শিশু নিহত হয়েছে।

এ ব্যাপারে মার্কিন কর্মকর্তারা জানান, কয়েকজন আইএস জঙ্গিকে বহন করছিল গাড়িটি। ড্রোন হামলার কারণে গাড়িটি থেকে দ্বিতীয় দফায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। তাই ধারণা করা হচ্ছে গাড়িটিতে বিপুল সংখ্যক বিস্ফোরক বহন করা হচ্ছিল।যুক্তরাষ্ট্রের ধারণা, ড্রোন হামলায় আত্মঘাতী হামলাকারীরা নিহত হয়েছে। দুজন জ্যেষ্ঠ মার্কিন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে একদিনের মধ্যে হামলা হতে পারে এমন আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেন, রবিবারেই এ হামলা হতে পারে বলে মার্কিন সামরিক কমান্ডাররা আমাকে জানিয়েছেন।বিমানবন্দরের বাইরে ড্রোন হামলায় বিস্ফোরণের মূল হোতাকে হত্যার দাবির পর আইএসের খোরাসান গোষ্ঠী বদলা নেবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তার সেই আশঙ্কা সত্যি হলো।

গত চারদিন আগে আফগানিস্থানের রাজধানী কাবুল বিমান বন্দরের বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেছিল আইএসের খোরাসান গোষ্ঠী। ওই হামলায় ১৮৩ জন প্রাণ হারিয়েছে। তাদের মধ্যে ১৩ মার্কিন সেনাও রয়েছে। নিহতদের বেশির ভাগই আফগান বেসামরিক নাগরিক।

কালের ছবি / রাজীব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *