রাজবাড়ীর পদ্মায় জেলার জালে ১২ মণের শাপলা মাছ

জাতীয় দেশজুড়ে

কালের ছবি ডেস্ক: রাজবাড়ীর জেলার গোয়ালন্দে জেলে জালে ধরা পরেছে ১২ মণ ওজনের বিশাল আকারের শাপলা পাতা মাছ। এ মাছটি লক্ষাধিক টাকায় বিক্রিও হয়েছে।

রোববার (২৯ আগষ্ট) সকাল ৭টার দিকে গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ফেরী ঘাট এলাকার অদূরে গভীর পদ্মায় বাবু সরদার নামে এক জেলে মাছটি ধরেছে।

মাছিটি দৌলতদিয়া আড়ৎদার মো: রেজাউল ইসলাম বিক্রির জন্য রোববার বেলা ১১টার দিকে রাজবাড়ী জেলার বড় বাজারের আড়ৎদার কুটি মন্ডলের কাছে নিয়ে আসেন। সেখানে মাছটিকে এক নজর দেখতে শত শত উৎসুক জনতা ভীড় জমায়। এ সময় সবাই মাছটির ছবি তুলতে মোবাইল ফোন নিয়ে হুরোহুরি শুরু করে।

এ বিষয়ে জেলে বাবু সরদার জানান, প্রতিদিনের ন্যায় মাছ ধরার জন্য পদ্মা নদীতে আমরা জাল ফেলি। রোববার ভোরে ফেরী ঘাটের অদূরে জাল ফেললে অনেক ওজন টের পাই। তখন বুঝতে পারি বিশাল আকৃতির কোন মাছ ধরা পরেছে। পরে কয়েকজন মিলে ঘন্টা খানিক চেষ্টা করে মাছটিকে নৌকায় তুলতে পারি।

দৌলতদিয়ার স্থানীয় আড়ৎদার মো: রেজাউল ইসলাম বলেন,মাছটির ওজন প্রায় ১২ মণ। রাজবাড়ী জেলার বড় বাজারের বিশিষ্ট মৎস আড়ৎদার কুটি মন্ডলের কাছে ৮ হাজার টাকা মণ দরে বিক্রি করলাম। এরপর সে মাছটি কিছুটা লাভে বিক্রি করবে। মাছটির বয়স কমপক্ষে ৩০ বছর হবে।

এ প্রসঙ্গে গোয়ালন্দ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. রেজাউল শরীফ জানান, পদ্মা নদীতে এমন মাছ সচরাচর পাওয়া যায় না। তবে এই মাছ খাওয়ার দিক থেকে জনপ্রিয় না বলে দামও বেশি না। এ ধরনের মাছ সাধারণত ফ্যাসন, দশন, কৌনা, কচাল ও চাকা ওয়ালা ঘাইলা ব্যার জালে ধরা পড়ে।

উল্লেখ্য, মাছটির ইংরেজী নাম স্টিংরে ফিস এবং বৈজ্ঞানিক নাম হিমানটুরাইমব্রিকাটা। এ মাছগুলো নদীতে কম থাকে। এদের মূল আবাস স্থল গভীর সাগরে। গত ৫ দিন আগে বঙ্গোপসাগরে ধরা পরেছিলো ১০ মণ ওজনের একটি শাপলা পাছ যা স্থানীয় বাজারে ৫০ হাজার টাকায় বিক্রি করেছিলো ফিসিং প্রতিষ্ঠানটি।

কালের ছবি/ রাজীব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *