নবীনগরে সম্পত্তির জন্য চাচাকে অপহরণ

আইন আদালত জাতীয় দেশজুড়ে

জাকির হোসাইন জিকু: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বিটঘর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান দুলাল মিয়ার পুত্র হাসান মাহমুদ তার আপন চাচাকে সম্পত্তির জন্য শনিবার (২১ আগস্ট)  ভোর রাতে গ্রামের বাড়ি থেকে ঘরের দরজা ভেঙে পরিবারের সদস্যদের মারধর করে অপহরণ করে তুলে নিয়ে যায়।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়,বিটঘর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ভাতুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা ও দুলাল জর্দা কোম্পানির মালিক দুলাল মিয়ার মৃত্যুর পর তাদের যৌথভাবে ৮০ বিঘা জমির মধ্যে তার আপন ভাই আলাল মিয়া ও হারুন মিয়া তাদের সম্পত্তি বিক্রি করতে গেলে বাধা দেয় দুলাল মিয়ার সন্তান হাসান মাহমুদ।

এ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তাদের মধ্যে চলছে চরম বিরোধ। তাদের চাচা ভাতিজার মধ্যে বিরোধের কারণে গ্রামে পরিস্থিতি গড়ায় দলাদলিতে।

দুই পক্ষের মধ্যে এই বিষয়ে মারামারি ও মামলা মোকদ্দমা চলছে।

গেল শনিবার ভোর সাড়ে তিনটায় জমি বিক্রি করতে আগেই চাচা আলাল মিয়া বাড়িতে এলে ভাতিজা হাসান মাহমুদ তার সাঙ্গপাঙ্গদের নিয়ে ঘরের দরজা ভেঙে পরিবারের সদস্যদের মারধর করে আলাল মিয়াকে তুলে নিয়ে যায়।

এই ঘটনাটি মুহূর্তের মধ্যে এলাকায় হৈচৈ ফেলে দিলে সকালে নবীনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
তারা প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পেলে দ্রুত অভিযান চালিয়ে ২৪ ঘন্টার ভেতর নবীনগর থানা পুলিশের একটি দল ঢাকা ভাটারা থানা থেকে একটি পরিত্যাক্ত ভবনে হাত পা বাঁধা অবস্থায় চাচা আলাল মিয়াকে উদ্ধার করে সেই ঘটনায় ভাতিজা হাসান মাহামুদকে তার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করেন।

এ ঘটনায় ভিকটিম আলাল মিয়ার স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তার বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। রবিবার বিকালে উদ্ধার হওয়া আলাল মিয়া ও আসামী চেয়ারম্যান পুত্র হাসান মাহমুদকে বিজ্ঞ আদালত প্রেরণ করা হয়।

নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিনুর রশীদ মুঠোফোনে বলেন,আমরা ঘটনাটি শুনে সাথে সাথে পুলিশ পাঠিয়েছি।

রবিবার আসামী সহ ভিকটিমকে উদ্ধার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

কালের ছবি/ রাজীব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *