দেশে ভরিতে সোনার দাম বাড়লো দেড় হাজার টাকা

অর্থনীতি জাতীয় দেশজুড়ে

কালের ছবি ডেস্ক: বাংলাদেশের বাজারে ভরিতে এক হাজার ৫১৬ টাকা বাড়িয়েছেন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির নেতারা যদিও আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম  কমেছে। তাতে ভালো মানের, অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের এক ভরি সোনার দাম গিয়ে দাঁড়াচ্ছে ৭৩ হাজার ৪৮৩ টাকায়। সোনার এ নতুন দর গতকাল রোববার সকাল থেকে সারাদেশে কার্যকর করেছে জুয়েলার্স সমিতি।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সোনার দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত জানায়। সেখানে দাম বাড়ানোর পক্ষে সমিতির সভাপতি এনামুল হক খান ও সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা যুক্তি দিয়েছেন, করোনার কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সংকট ও নানা জটিল সমীকরণের কারণে বিশ্ববাজারে সোনার দাম বেড়েছে। একই সঙ্গে আন্তর্জাতিক গন্তব্যে ফ্লাইট বন্ধ থাকার পাশাপাশি আমদানি পর্যায়ে শুল্ক জটিলতা ও নানা ধরনের দাপ্তরিক জটিলতায় ডিলার লাইসেন্স পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলো সোনার বার আমদানি করতে পারছে না। তাছাড়া চাহিদার বিপরীতে জোগান কম থাকায় দেশীয় বুলিয়ন মার্কেটে সোনার দাম বেড়েছে। তথ্য: শেয়ার বীস।

জুয়েলার্স সমিতি সোনার দাম বাড়ানোর বিষয়ে নানা যুক্তি দেখালেও এবং আন্তর্জাতিক বাজারে গত দুই মাসে কিছুটা উত্থানপতন থাকলেও শেষ পর্যন্ত দর মোটামুটি স্থিতিশীল ছিল। সর্বশেষ গত ২০ জুন সোনার দাম ভরিতে এক হাজার ৫১৬ টাকা হ্রাস করেছিল জুয়েলার্স সমিতি। ওই দিন আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি আউন্স (৩১.১০৩৪৭৬৮ গ্রাম) সোনার দাম ছিল এক হাজার ৭৮৩ মার্কিন ডলার। গত বৃহস্পতিবার সেই দাম কমে দাঁড়ায় এক হাজার ৭৮১ ডলার। তার মানে প্রতি আউন্সের দাম দুই ডলার কমেছে।

আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম কমলেও দেশে কেন বাড়ল, সে বিষয়ে জানতে চাইলে দিলীপ কুমার আগরওয়ালা বলেন, ‘দেশের বুলিয়ন বাজারে খাঁটি সোনার দাম বেড়ে গেছে। গতকাল ৬৪ হাজার ২০০ টাকা ভরিতে খাঁটি সোনা বিক্রি হয়েছে। সেই হিসাবে আমাদের ভরিতে দুই হাজার ৫৩৩ টাকা বাড়ানোর দরকার ছিল। তবে বাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে বলে একবারে এত দাম বাড়ানো হয়নি।’

উল্লেখ্য করোনার কারণে দেড় বছর ধরে দেশ-বিদেশের সোনার বাজারে অস্থিরতা চলছে। গত বছর ৬ আগস্ট দেশে সোনার দাম ৭৭ হাজার ২১৬ টাকা ভরি হয়েছিল। সেটিই ছিল দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ দাম। ওই সময় সোনার অলংকার বিক্রির প্রবণতাও বেড়েছিল।

কালের ছবি/ রাজবি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *