মারা গেছি ভেবে শ্মশানে ফেলে যানঃ শৈশবে দেব

Model দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে

বিনোদন ডেস্কঃ পশ্চিম বঙ্গের  জনপ্রিয় অভিনেতা ও তৃণমুলের সংসদ সদস্য দেব। ছবির জন্য অনেক সময় পর্দায় মারা যাওয়ার অভিনয়ও করতে হয় যাকে। কিন্তু জানেন কী শৈশবে একবার দেব’কে মৃত ভেবে শশ্মানে ফেলে রেখে দেওয়া হয়েছিল। সম্প্রতি একটি টক শো এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদন অনুযায়ী, শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের সঞ্চালনায় টেলিভিশনের এক টক শো’তে দেব জানিয়েছেন, খুব ছোটবেলায় গাজনের মেলা দেখতে মু্ম্বাই থেকে মামার বাড়ি এসেছিলেন দীপক অধিকারী ওরফে দেব। সবার সঙ্গে হৈ চৈ করতে করতে গ্রামের মেলায় গেছিলেন। সেখান থেকেই কেউ তাকে কিছু খাইয়ে দিয়েছিল। এতে সঙ্গে সঙ্গে অজ্ঞান হয়ে পড়েন দেব। টানা একদিন জ্ঞান ফেরেনি দেবের। পরে ওই গ্রামবাসীদের ধারণা হয়, দেব মারা গেছে। নির্দিষ্ট সময়ের পরে তাকে সবাই নিয়ে ফেলে রেখে যান শ্মশানে।

টক শো-এ দেবের সঙ্গে সেদিন ছিলেন অভিনেত্রী রুক্মিণী মৈত্রও। পুরো ঘটনা জেনে শিউরে ওঠেন তিনিও। দেব জানান, দেব নিখোঁজ হতেই তার দিদা সব জায়গায় তাকে খুঁজতে শুরু করেন। এ দিকে শ্মশানে ফেলে রেখে যাওয়ার এক দিন পরে জ্ঞান ফেরে দেবের। সারা রাত খোঁজাখুঁজির পর তাকে খুঁজে পান দিদা, মামারা।

ওই অনুষ্ঠানে দেব আরও জানান, দিদা সেই সময় মানত করেছিলেন, দেবকে খুঁজে পেলে বড় হওয়ার পর তিনি দেবকে দিয়ে গাজনের সন্ন্যাস পালন করাবেন। দিদার মানত রাখতে মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার পরে আবার গ্রামে ফিরেছিলেন দেব। এক সপ্তাহের জন্য তিনি ‘ভক্তা’ বা গাজনের সন্ন্যাসী হয়েছিলেন। অন্যান্য সন্ন্যাসীদের মতো তখন তিনিও মন্দিরে থাকতেন। পালন করতে সন্ন্যাসীদের সব আচার।

কালের ছবি/ রাজীব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *