1. aminandbd@gmail.com : Aminul Islam : Aminul Islam
  2. rajib6850@gmail.com : Md. Rajib : Md. Rajib
  3. mrkarim121292@gmail.com : Leo Rezaul Karim : Leo Rezaul Karim
  4. zahidbdg@gmail.com : Zahidul Islam : Zahidul Islam
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:০৫ অপরাহ্ন

‘গাছে কাঁঠাল থাকলে গোঁফে তেল দিতে টাইগারদের অসুবিধা কোথায়?

  • Update Time : বুধবার, ২ নভেম্বর, ২০২২
  • ৪০ Time View

পয়েন্ট টেবিলের হিসেব বলছে সেমিফাইনালে যাওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশ অনেকটা এগিয়ে না থাকলেও খুব একটা পিছিয়ে নেই। পাকিস্তানকে সেমিফাইনালে যেতে হলে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারালেই চলবে না, তাকিয়ে থাকতে হবে সমীকরণের নানা হিসেবের দিকে।

আর ভারতের সমীকরণটা অনেকটা সহজ। কারণ তাদের প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে। শক্তির বিচারে রোহিত শর্মার দল দুই প্রতিপক্ষকেই হারাতে পারে। তবে জিম্বাবুয়ে এবারের জায়ান্ট কিলারের ভূমিকায়। তাই ভারতের সহজ কাজটা সহজ হবে কিনা সেটাও প্রশ্ন সাপেক্ষ বিষয়। কারণ ভারী ব্যাটিং লাইনআপের ভারত কাবু হবে কীভাবে সে সূত্র এরইমধ্যে প্রোটিয়ারা শিখিয়ে দিয়েছে।

বাংলাদেশের জন্যও ভারতকে কাবু করার বড় মন্ত্র হতে পারে লুঙ্গি এনগিডির কৌশল। যে কৌশল কাজে লাগাতে পারেন তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম ও হাসান মাহমুদরা। এই চারজনের পেস ব্যাটারিকে ঠিকঠাক কাজে লাগাতে পারলে ভারতকে ধসিয়ে দেওয়া খুব একটা কঠিন হবে না। কারণ, ভারতের শক্তির জায়গাই তাদের দুর্বলতা।

 

পয়েন্টের হিসেবেও বাংলাদেশ আছে তিন নম্বর অবস্থানে। সেই হিসেবে বাংলাদেশ পাকিস্তান আর ভারতকে হারাতে পারলেই সোজা সেমিতে। আর কোনো একটা দলকে হারাতে পারলেও বদলে যেতে পারে হিসেব নিকেশ।

পাকিস্তানকে হারানোও খুব একটা কঠিন নয়। কারণ তাদের টপ অর্ডার ব্যাটার বাবর আজম ফর্মে নেই। মোহাম্মদ রিজওয়ানও নেই সুবিধাজনক অবস্থানে। আর মিডল অর্ডারও খুব নড়বড়ে। কেবল সঠিক পরিকল্পনায় একটু আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলতে পারলেই পাকিস্তানকে হারানো টাইগারদের জন্য বেশি কিছু নয়, কোনো অঘটনও ঘটাতে হবে না।

খেলা যেহেতু মাঠেই হবে। মাঠ পরিস্থিতি বলছে হারতে হারতে ক্লান্ত হওয়া পাকিস্তানকে বাংলাদেশ চাইলে সহজেই কুপোকাত করতে পারবে। তবে তাতে দরকার হবে দৃঢ় মনোবলের। যেই মনোবলটার অভাব আছে সাকিবের কথায়।

তিনি ভারতকে হারাতে পারবেন না ধরেই মাঠে নামছেন। পাকিস্তানের বেলাতেও হয়তো তার মনোভাব তেমনই। তাই মিলছে না একটা প্রশ্নের উত্তর, সাকিবের আত্মবিশ্বাস কেনো এমন শূন্যের কোঠায়। বিশ্বমানের ক্রিকেটার হয়েও তিনি কেন বিশ্বমানের চিন্তাভাবনা করতে পারছেন না?

সেই প্রশ্নের উত্তরে হয়তো অনেকেই বলবেন, গাছে কাঁঠাল গোঁফে তেল! কী লাভ আকাশকুসুম ভাবনায়? তাদের জন্যই বলা, গাছে কাঁঠাল থাকলে সাকিবদের গোঁফে তেল দিতে সমস্যা বা অসুবিধা কোথায়? পয়েন্ট টেবিলে পয়েন্ট আছে, ভারত-পাকিস্তানের বিপক্ষে জেতার সম্ভাবনাও ক্ষীণ নয়। অঘটন না ঘটিয়ে কেবল ঘটনাতেও ভারতকে হারাতে পারে সাকিবরা। একটু বিচার বিশ্লেষণ করলে সেটা বলাও অমূলক নয়, তবুও অঘটন ঘটন পটিয়সী সাকিবের চোখ কেনো অঘটনেই?

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
কপিরাইট © 2022 দৈনিক কালের ছবি
Design & Development By Md. Rajib