1. aminandbd@gmail.com : Aminul Islam : Aminul Islam
  2. rajib6850@gmail.com : Md. Rajib : Md. Rajib
  3. mrkarim121292@gmail.com : Leo Rezaul Karim : Leo Rezaul Karim
  4. zahidbdg@gmail.com : Zahidul Islam : Zahidul Islam
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৫৩ অপরাহ্ন

ইসলামবিদ্বেষের শিকার ব্রিটেনের এনইউএস প্রেসিডেন্ট সায়মা দাল্লালি!

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৩ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৭ Time View

ইহুদিবিরোধী অভিযোগে ব্রিটেনের ন্যাশনাল ইউনিয়ন অফ স্টুডেন্টস (এনইউএস)-এর নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট সায়মা দাল্লালিকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তবে তিনি ইসলামবিদ্বেষের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছে মুসলিম কাউন্সিল অব ব্রিটেন।

একটি স্বাধীন কোড অফ কন্ডাক্ট অনুযায়ী তদন্তের পর তাকে বরখাস্ত করা হয়।

ইউনিয়ন বলছে, ইহুদি বিরোধীতার অভিযোগে রাজার নেতৃত্বাধীন স্বাধীন কাউন্সেল তদন্তের পর দেখেছেন যে এনইউএস’র নীতিগুলির উল্লেখযোগ্য লঙ্ঘন ঘটেছে।

উল্লেখ্য, এনইউএস’র কোড অফ কন্ডাক্টের অধীনে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়।

ইউনিয়ন আরো বলছে, প্রতিবেদন অনুযায়ী, আমরা প্রেসিডেন্টের সাথে আলোচনা শেষ করেছি। আমরা যেকোনো আগ্রহী দলকে এটুকু আশ্বস্ত করতে পারি যে, আমরা যেটুকু পেরেছি এ প্রক্রিয়াকে শক্তিশালী করেছি। এর ফলাফল অবশ্যই বিশ্বাসযোগ্য হবে।

এনইউএস বলছে, ‘আমরা জানি বিষয়টির সাথে ‘গভীর আবেগ’ জড়িয়ে আছে। আমরা জনগণের কাছে অনুরোধ করব যে, প্রক্রিয়াটির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এবং কোনো পক্ষ নেয়া থেকে বিরত থাকতে।’ পাশাপাশি এই অনুরোধও করেন যে বিষয়টি নিয়ে যাতে জড়িত কারো বিরুদ্ধে, বিশেষ করে অনলাইনে কোনো বিদ্বেষপূর্ণ কথা বলা না হয়।

বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে ইউনিয়ন অব জিউস স্টুডেন্ট (ইউজেএস) সহ উগ্র জায়নবাদী দলগুলোর ‘একটি চিঠি’ প্রকাশ্যে আনার মাধ্যমে। খোলা চিঠিটি ২৬ বছর বয়সী সায়মা দাল্লালি সামাজিক মাধ্যমে ১০ বছর আগে লিখেছিলেন।

পোস্টটি প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে, একটি যুদ্ধের কথা উল্লেখ করায়। সপ্তম শতাব্দির শুরুতে আরব উপদ্বীপের মরুদ্যানে খাইবারের ইহুদি বাসিন্দা ও মুসলমানদের মধ্যে সংঘটিত হয়েছিল। এতে বলা হয়েছিল যে ‘মুহাম্মদ স:-এর সেনাদল’ গাজার দিকে ফিরে আসবে।

এনইউএস বলছে, উচ্চশিক্ষা বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট কোল ফিল্ড বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করবেন। পাশাপাশি তিনি সংগঠনের প্রেসিডেন্ট দাল্লালির স্থলাভিষিক্ত হবেন।

এদিকে বরখাস্ত হওয়া দাল্লালি সায়মা টুইটারে জানান, সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টের কারণে মঙ্গলবার তাকে পদচ্যুত করা হয়েছে। হাস্যকর বিষয় হলো, এটি ইসলামবিদ্বেষের বিরুদ্ধে সচেতনতার মাসের প্রথম দিন। তিনি বলেন, ‘এটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

দাল্লালির বাবা তিউনেশিয়ার এবং মা সুদানের নাগরিক। তিনি ২০০০ সালে ব্রিটেনে আসেন এবং লন্ডনের সিটি ইউনিভার্সিটিতে পড়াশুনা শুরু করেন। বর্তমানে আইন বিষয়ে মাস্টার্স করছেন।

মুসলিম কাউন্সিল অব ব্রিটেন দাল্লালির এ বিষয়টিকে গভীর উদ্বেগজনক বলে উল্লেখ করেছে। তিনি ইসলামবিদ্বেষের শিকার বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

সহযোগী এ সংগঠনটি বলছে, অনেক মুসলিম শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে ইসলামবিদ্বেষের শিকার হচ্ছে। এমন সিদ্ধান্ত আরো ভীতি ছড়াবে এবং এনইউএস তাদের অবস্থানকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে। এগুলোর ব্যাখ্যা চেয়েছেন তারা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
কপিরাইট © 2022 দৈনিক কালের ছবি
Design & Development By Md. Rajib